উত্তর আমেরিকা অফিস

বয়স্ক অভিবাসীদের মধ্যে সেবা এবং যোগাযোগ তৎপরতা বৃদ্ধির জন্য বিশেষ অবদান রাখায় ‘কমিউনিটি হিরো’ খেতাব পেয়েছেন জ্যামাইকার ‘দেশী সিনিয়র সেন্টার’ এর পরিচালক সমাজ ও সংস্কৃতি কমী নারগিস আহমেদ। যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক একটি বেসরকারী সংগঠন এএআরপি’ যারা মূলত বয়স্ক নাগরিকদের সেবায় কাজ করে তারা এই খেতাব প্রদান করেছেন নারগিস আহমেদকে। গত ২৪ জানুয়ারী জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে আয়োজিত একটি অনাড়াম্বর অনুষ্টানে এএআরপি’র তরফে এই খেতাব এবং এক হাজার ডলারের চেক তুলে দেয়া হয়।

নারগিস আহমেদ, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের বেইজমেন্ট এ একটি বয়স্ক সেবা কেন্দ্র ‘দেশী সিনিয়র সেন্টার ‘পরিচালনা করে আসছেন বেশ কয়েক বছর ধরে। সেখানে বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের বয়স্করা প্রতিদিন সকালে গিয়ে চা নাস্তা করেন, নিজেদের মধ্যে সাংষ্কৃতিক ভাব বিনিময় করেন।এর বাইরে, যুক্তরাষ্ট্রে আইন বিধান এবং সিনিয়র নাগরিকদের অধিকার সর্ম্পকে জানার সুযোগ পান তারা। ইন্ডিয়া হোমস নামক একটি বড় এনজিও’র অঙ্গ প্রতিষ্টান হিসেবে এই ‘দেশী সিনিয়র সেন্টার’ পরিচালিত হয়, যার জন্য বরাদ্দ রয়েছে রাষ্ট্রীয় অর্থ। এই প্রতিষ্টানটি দাড় করাতে নারগিত আহমেদ এবং স্থানীয় কমিউনিটি নেতারা দীর্ঘদীন দেন দরবার করেছিলেন স্থানীয় রাজনীতিকদের সাথে।

খেতাব প্রদান অনুষ্টানে দেয়া সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে, নারগিস আহমেদ বলেন, যখন আমি কাজ করতাম আগে তখন আমার পিতা মাতারা আমাদের সাথেই থাকতেন। সে সময় তাদের নিজেদের প্রাণ ভরে নিশ্বাস নেয়ার জন্য, অন্যদের সাথে বন্ধুত্ব করার জন্য এমন কোন প্রতিষ্টান ছিল না। আজ তারা বেচে নেই, আমি তাদের জন্য অনেক কষ্ট পাই এখন।আমি মনে করি, এই প্রতিষ্টানের মাধ্যমে অন্য অনেক পিতা মাতারা একটু ভাল সময় পাচ্ছেন এখানে। সেটাই বড় পাওয়া’।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *