বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ডা. শাহ এম ফারুক: কলেরা চিকিৎসার অগ্রনায়ক  1 min read

সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৯ 1 min read

author:

ডা. শাহ এম ফারুক: কলেরা চিকিৎসার অগ্রনায়ক  1 min read

Reading Time: 1 minute

ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণে কলেরা রোগ হয় এটা আমরা মোটামুটি সবাই জানি। কিন্তু কোন ব্যাকটেরিয়া থেকে কীভাবে এ রোগ হয় সেটাই আবিষ্কার করেছেন বাংলাদেশের একজন বিজ্ঞানী ডা. শাহ এম ফারুক। তিনি ঢাকার আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্রের আণবিক জেনেটিক্স বিভাগের বিভাগীয় প্রধান। তিনি ও তাঁর গবেষণা দল দেখিয়েছেন যে, ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া থেকে কীভাবে কলেরা রোগ হয়।

যখন বিশ্বব্যাপী নতুন এক ধরণের ব্যাকটেরিয়াকে কলেরার কারণ হিসেবে দায়ী করা হচ্ছিল ঠিক তখনই ডা. শাহ এম ফারুক ও তাঁর গবেষণা দল বের করেছেন যে, Vibrio নামক এক ধরণের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণে মানুষ কলেরায় আক্রান্ত হয় ও অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাঁদের গবেষণায় আরও দেখানো হয়েছে, এ ব্যাকটেরিয়ার সংস্পর্শে অন্য ব্যাকটেরিয়া আসলে সেগুলো আরও শক্তিশালী হয়ে যায়।

ডা. শাহ এম ফারুক ২০০৫ সালে উন্নয়নশীল দেশের বিজ্ঞানীদের মধ্যে চিকিৎসা বিজ্ঞানে সর্বোচ্চ পুরস্কারে (TWAS Prize- 2005) ভূষিত হয়েছেন। এ স্বীকৃতি তিনি পেয়েছেন সায়েন্টিফিক জার্নালে তাঁর প্রকাশিত গবেষণাপত্রের উপর ভিত্তি করে। তিনি প্রায় শতাধিক বিশ্বমানের পিয়ার রিভিউড গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন। তাঁর গবেষণার মান পৃথিবীর বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় যেমন— হার্ভার্ড ও কেমব্রিজ এবং NIH(National Institute of Health) এর মতো গবেষণা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞানীদের গবেষণার সাথে তুলনীয়। ২০১০ সালে খ্যাতিমান এ বিজ্ঞানীর গবেষণা লব্ধ তথ্য বিশ্বের সবচেয়ে নামকরা সায়েন্টিফিক জার্নাল নেচার-এ প্রকাশিত হয়েছিল।

লেখক- নিশাত সুলতানা                                                        

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *